এটা করুন সবাই আপনাকে নিয়ে ভাববে

হাজারো লোকের ভিরে কেবল মাএ ২-১জনই এই রকন থাকে যাদের দেখলে আমাদের চোখ আটকে যায়। যার চেহারা আমরা ভুলতে পারি না তা না হলে আমরা প্রতিদন তো হাজার হাজার চেহারাই দেখি কিন্ত তাদের মধ্যে মনে থাকে শুধু দুই একটা চেহারাই।  আপনিও কি তাদের মতো হতে চান তাহলে আজকের পোস্টটি সম্পর্ণ মনোযোগ দিয়ে পড়ুন।

সবার প্রথনে বলি আপনাকে এমন টা তৈরি করতে হয় যাতে লোক আপনাকে দেখে ভুলবে না। লোক আপনার সাথে থাকতে চাইবে এই পৃথীবিতে কখনোই এমন হবে না যে লোক আপনাকে এমনি এমনি মনে রাখবে কোনো প্রকার কারণ ছাড়াই মানুষের মনে রাখার পিছনে কারণ আছে। এর মূল কারণ হলো ইগো প্রতিটি মানুষ প্রতিটি মানুষের সাথে রেস দিচ্ছে সবাই কেবল একে অপরের থেকে এগিয়ে যেতে চায়।কেউ নিজের ফিল্ডে বেস্ট হবার চেষ্টাই করে না।

কোনো একটি সিঙ্গার আর একটি ডান্সার তাদের দু’জনের ফিল্ড আলাদা আলাদা কিন্ত তারপরেও যদি কেনো এক সিঙ্গার কোনো এক ডান্সারের ফলোয়ার দেখে সেটি যদি তার থেকে বেশি হয়ে যায় তাহলে সে সেড হয়ে যায় আর ভাবে তার থেকে আমার কি এমন কমতি আছে যে আমার ফলোয়ার কম।  তখহ আপনাকে ভাবতে হয়ে আমার মধ্যে কিছুই কমতি নেই কারণ কিছু জিনিস মানুষ বেশি ভালোবাসে কিছু জিনিস মানুষের কাছে আগে পৌছায় আর কিছু জিনিস পরে পৌছায়।  ডান্সারের ফলোয়ার বেশি হবার কারণ হলো ডান্স মানুষ বেশি পছন্দ করে তাই তার ফলোয়ার বেশ। আর আপনার ফলোয়ার তারা যারা গান পছন্দ করে আর হয়তো আপনার গান এখনো সবার কাছপ পৌছায় নাই তবে একদিন পৌঁছে যাবে।  তই আপনাকে আপনার কাজ লোকের কাছে পৌঁছে দিতে হবে আর বাকি কাজ অটোমেটিক হয়ে যাবে। তাই আপনাকে লোকের কাছে আনার জন্য এমন হতে হবে যে আপনার কোনো আফসোস  থাকবেনা। আপনি সব সময় আপবার ফিল্ডে বেস্ট হওয়ার চেষ্টা করবেন আগে যাকরছেন বা আগে যা হইছে তা নিয়ে কখনো চিন্তা করবেন না।  যদি মনে করেন আগের কাজটা আপনার ভূল হয়েছে তাহলে সামনের জনকে সরি বলুন আর নিজেকে সরি বলে প্রমুস করুন যে এই ভূলটা আর কোনেদিন হবে না এটদই যতেষ্ট কারণ আপনার মধ্যে সব সময় কনফিডেন্স থাকা দরকার কষ্ট পেয়ে কত দিন থাকবেন আর কেনই বা কষ্ট পাবেন।একটা কথা মনে রাখবেন ভূল সবাই সাথেই হয় তাই এতো ভাবাভাবির দরকার নাই। আমরা এই পৃথীবিতে যুগ যুগ ধরে থাকবো না তাই যে কয়টা দিন আছি একটু খুশিতেই থাকি এটা খুব গুরুত্বপূর্ণ।

এরপর লোক দেখানো বন্ধ করুন এমনও কিছু আছে যারা গরীব লোককে একটি রুটি দিলেও তার ফটো তুলে সোসাল মিডিয়াতে আপলোড করে দেয়। তারা দেখানোর চেষ্টা করে সে কতটা মহান কাজ করেছে কিন্তু করতে যদি হয় মন থেকে করুন সেটা লোক দেখানোর দরকার নেই যে আপনি কি করেছেন। মনে রাখবেন যেখানে কেউ থাকেনা সেখানেও কিন্তু খোদা আপনাকে দেখছেন আপনি ভালো কিছু করুন আর না করুন আপনার কর্ম হিসেবেই আপবার জীবন চলতে থাকবে।তাই লোক দেখানোর জন্য  কিছু করবেন না আর লোক তাকেই বেশি পছন্দ যে ভালো কিছু করে কিন্তু সবাই দেখানোর জন্য নয়।

আর আপনি এই রকম হলে আপনার সাথে সামান্য কিছু লোক থাকবে কিন্তু তারা সারা জীবন আপনার সাথেই থাকবে।এরপর হলো নিজের মাইন্ড সেইফ যা এমন হওয়া দরকার যে সমস্যা আসলে ডিপেস ফিল করলেও সমস্যার সাথে আপনি নিজেই লড়াই করবেন। এখানে কেউ আসবেনা আপনাকে সাপোর্ট করার জন্য তাই নিজেকে মজবুত করতে হবে, নিজের সাথে কথা বলতে হবে আর নিজেই নিজের ভালো বন্ধু হতে হবে তাহলে আপনি সাহস পাবেন আর আপনার সমস্যার সাথে লড়াই করতে পারবেন।

সবশেষে এটা বলবো আপনার টাইম আর আপনার এনার্জিকে ফালতু কাজে ব্যয় করলে আপনি অনেক সমস্যায় পড়ে যেতে পারেন।তাই সব সময় ভালো কাজে লাগান একটি হলো নিজেকে বিজি রাখার আরকটি হলো নিজেকে পোডাক্টিভ তৈরি করা।বিজি আপনি অনেক ভাবেই থাকতে পারেন সেটা আড্ডা দিয়েও আবার অন্যের কাজ করেও কিন্তু আপনি বিজি থাকেন নিজের নলেজ কে বৃদ্ধি করার জন্য।কিছু একটা করা বা জানা যা আপনি আগে জানতেন না এবং যা আপনাকে আরো কনফিডেন্স দিবে আর আপনাকে সবার কাছে অনেক স্পেশাল করে তুলবে।

আশাকরি আজকের এই পোস্টটি আপনার পারসোর্নালিটিকে আরো শক্তিশালী করবে

#ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *