নিজের জীবনের মূল্য জানতে হলে এটা পড়ুন

যদি আপনি আপনার মূল্যকে বাড়াতে চান তাহলে এই ৫টি কথা সব সময় মনে রাখবেন।

১। সবার প্রথমে সব সময় কেবল অন্যের কথা না ভেবে নিজের কথাও চিন্তা করুন কারণ লোক এটা ভুলে যাবে যে আপনি তাকে কতটা খুশি দিয়েছেন। আর এটা মনে রাখবে আপনি তার মনে কখন কষ্ট দিয়েছেন।

২। কারো সামনে হাত জোর করবেন না যে সে আপনার সঙ্গে থাকুক।যে মানুষটা আপনাকে সত্যি ভালোবাসবে সে অবশ্যই আপনার সঙ্গে থাকবে

৩। কেবল তাকেই ভালোবাসুন যাকে ইনপ্রেস করতে হবে না।যে আপনাকে তেমন ভাবেই ভালোবাসবে যেমনটা আপনি।যার জন্য খুব একটা আপনাকে পরিবর্তন হতে হবে না।

৪। খারাপ বন্ধু গুলোকে নিজের জীবন থেকে এমনভাবে বের করে ফেলুন যেমটা মাছিকে আমরা চায়ের কাপ থেকে ফেলে দেই।

৫। নতুন সপ্তাহে নতুন কোথাও ঘুরতে না গিয়ে নতুন কোনো পার্টিতে ঘুরতে না গিয়ে, নতুন কিছু শিখার চেষ্টা করুন।এটা আপনার বেশি কাজে আসবে।

কিছু লোকের শখ অনেক কম হয় কারণ এরা বাড়ির সবথেকে বড়লক হয়।এদের কাদে অনেক দায়িত্ব থাকে। এরা জানে এদের শখ পূরণ কীতপ গেলে তাদের পরিবারকে কষ্ট পেতে হবে। আর এই কারণেই অনেকেই তাদের সপ্নকে ছেড়ে দেয়। আর যখন আপনার ভাগ্য আপনার সাথে থাকবেনা তখন বুঝে নিবেন আপনার পরিশ্রম আপনার সাথে থাকবে।

যেমন একটা সার্রকাসে একটা বড় হাতি ছিল সে রোজ এটা ভাবতো যে আমার যেখানে থাকা ভাগ্যে লেখা থাকবে আমি সেখানেই থাকবো।যদি আমার ভাগ্যে জঙ্গলে থাকা লেখা থাকে তাহলে আমি জঙ্গলে থাকবো,আর যদি কোনো খাঁচার মধ্যে লেখা থাকে তাহলে আমি খাচাতেই থাকবো।আর হাতিটার এই চিন্তাই ওই খাচাতে বন্দি করে রেখেছে সে বাইরে যাবার কোনোদিন ট্রাই ই করেনি।এরপর একদিন হাতির খাচার পাশপ আরেকটি পাখির খাচা রাখা হয়।আর হাতির মন খারাপ দেখে পাখিটি জিজ্ঞেস করে তোমার মন কেন খারাপ।তখন হাতিটি বলে মন খারাপ করবো না তোমকি করবো তুমিতো ছোট একটা পাখি যখন চাইবে এখান থেকে উড়ে চলে যেতে পারবে, কিন্তু  আমাকে দেখ আমাকে সেখল দিয়ে বেদে রাখা হয়েছে। আমার ভাগ্য এতোটই খারাপ জানিনা আমার কি হবে।

এরপর পাখিটি বলে তুমি হাতি নয় তুমি একটা গাধা, কারণ তোমার শরীরে যে শক্তি আছপ তুমি চাইলেই এর থেকে বড় সেখলকে ছিড়ে ফেলতে পারবে।তুমিতো একবার চেষ্টা করো তুমি কোনো চেষ্টা না করেই তুমি তোমার ভাগ্যকে মেনে নিয়েছো। আর তুমি ভাবছো তোমার ভাগ্য তোমাকে বাঁচাবে, কিন্তু ভাগ্য তোমাকে এতেটা শক্তি দিয়েছে একটু পরিশ্রম তো করো।তারপর দেখো বড় থেকে বড় বাদা তুৃমি কিভাবে পার হয়ে যাবে।

পাখিটির কথা শুনপ হাতিটির মনবল বেড়ে যায়।আর হাতিটি মূর্হেতের মধ্যে সেখলটি ছিড়ে ফেলে আর পাখিটিকেও মুক্ত করে।আর দু’জনে জঙ্গলের দিকে চলে যায়।তাই ভাগ্যের ভরসায় তখনই থাকবেন যখন আপনার পরিশ্রমের বাইরে।যা কিছু আপনার পরিশ্রম দ্বারা সম্ভব তা পরিশ্রম দ্বারাই অর্জন করা শিখুন।

আর জীবনে যদি সুখি থাকতে চান তাহলে এই কথাটা সব সময় মনে রাখবেন –

১। জীবনে একা থাকুন কিন্তু অন্যের ভরসায় থাকবেন না।

২। যতটা শান্ত আপনার বডিকে রাখেন, যতটা শান্ত ফটো তোলার সময় থাকেন  ততটা শান্ত আপনার ব্রেণকেও রাখুন।

৩। সেই লোক যারা আপনার কাছে সাহায্য চায়না, কিন্তু আপনি সাহায্য করতে পারবেন। তাদেরকে অবশ্যই সাহায্য করুন মনে শান্তি পাবেন।

৪। যদি আপনাকে আপনার পরিবার সাপোর্ট না করে তাহলে ভবিষ্যতে আপনি আপনার সন্তানদের অবশ্যই সাপোর্ট করবেন। যাতে যে কষ্টটা আপনি পাচ্ছেন সেটা যেন অন্য কেউ না পায়।

৫।  আপনি সব সময় রেগে থাকবেন না।তাহলে আপনার জীবন থেকে সমস্ত  খুশি হারিয়ে যাবে।তাই সব সময় হাসিমুখে থাকুন, হাসিমুখে সবার সাথে কথা বলুন।

আজকের মতো এখানেই শেষ

#ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *